তাসলিমা নাসরিন ও তার সততা যখন প্রশ্নবিদ্ধ!


14324349_901567109987748_1486934473165314855_o

‘‘পূর্ব দিকে সূর্য ওঠার মতই সত্য সব কথাবার্তা বলেছেন, যা অধিকাংশের পক্ষে মেনেও নেওয়া যায় না, আবার ছুড়ে ফেলে দেওয়া যায় না। অনিচ্ছা সত্ত্বেও যার অনেকটুকুকেই সত্যি বলে অস্বীকার করার উপায় থাকে না, যে কথাগুলো অমন করে আগে বা পরে কেউ বলার সাহস দেখাতে পারেনি।’’

(তাসলিমা সম্বন্ধে জেসমিন চৌধুরী বাংলাট্রিবিউনে)

লিংকঃ [ঘরে ঘরে অসংখ্য তাসলিমা নাসরিন চাই:জেসমিন চৌধুরী-বাংলাট্রিবিউন]

ওয়েল!তাসলিমা সত্য কইছেন, এখন রুদ্র প্রেমীরা এইটা মাইনা নিতে পারবে কি যেইটা তাসলিমা রুদ্র সম্বন্ধে বলছে?

একটা বইতে সে বলছে,তার স্বামী কবি রুদ্র মুহম্মদ শহীদুল্লাহ পতিতাদের কাছে যেতেন। তাই তিনি এক সময় সিফিলিসের আশঙ্কা করতেন।রুদ্র সম্বন্ধে এহেন কথার কারণে মুক্তমনা গুরু হুমায়ুন আজাদ তাসলিম সম্বন্ধে বলছিলেন “Don’t mention Taslima Nasrin to me – I may contract syphilis.” 

তাসলিমা মানেই মিথ্যা আর ‘আমি আমি’র ছড়াছড়ি।আহমদ ছফার সম্বন্ধে প্রচুর মিথ্যাচার করেছে তাসলিমা নাসরিন।যার জবাবে পুরো একটা বই’ই লিখেছিলেন আহমেদ ছফা।বইটির নাম ‘আনুপূর্বক তাসলিমা এবং অন্যান্য স্পর্শকাতর বিষয়’। আহমদ ছফা তার “আনুপূর্বক তাসলিমা এবং অন্যান্য স্পর্শকাতর বিষয়” বইয়ে বলেছেন,

 

‘‘তসলিমা নাসরীন- এর ওপর যখন বাংলা একাডেমীর মেলায় হামলা করেছে সংবাদপত্রে শুনেছি , অন্যান্য লেখক সাহিত্যিক এর সংগে আমিও যৌথভাবে বিবৃতি দিয়ে এই অপকর্মের নিন্দা করেছি । পরে অবশ্য কিছু কিছু মানুষের কাছে শুনেছি তাসলিমা নাসরীন মানুষের সহানুভুতির দৃষ্টি আকর্ষন করার জন্য আগে থেকে যোগার করে এই স্বরচিত হামলা কান্ডটি ঘটিয়েছে। তসলিমা নাসরীন হালে এমন একজন মহিলায় রূপান্তরিত হয়েছে তার মধ্যে সম্ভব অসম্ভবের ভেদ রেখাটি মুছে গিয়েছে। কোনটা সত্য কোনটা বানোয়াট বলা খুবই মুশকিল ।”

 

তাসলিমা নাসরিন যে পুরোদস্তুর একজন চালবাজ সেই সম্বন্ধে আরো ক্লিয়ার করেছেন মুক্তমনাদের গুরু হুমায়ুন আজাদ।হুমায়ুন আজাদ এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন,

hahorse

“মৌলবাদিরা কোন চক্রান্ত থেকে তার বিরুদ্ধে আন্দোলন শুরু করে, তা আমি জানি না। তবে এ-ধরণের গুজব শোনা যায় ভারতের বিজেপি এর সংগে সংশিষ্ট ছিল, এমনকি তসলিমা নাসরিন নিজের বিরুদ্ধে মিছিলের আয়োজন নিজেই করেছিল বলে আমরা শুনেছি। বাঙলা একাডেমির বইমেলায় মিছিল হচ্ছিল, ছোট মিছিল, আমি নিজে তা বাধা দিতে গিয়েছিলাম, পরে শুনি ওটার আয়োজন সে-ই করেছে। তাই আমি আর বাধা দিই নি। বাঙলা একাডেমির তখনকার মহাপরিচালক আমাকে জানিয়েছিলেন মিছিলটি তসলিমা নিজেই আয়োজন করেছে। তসলিমা চেয়েছিল একটি মহাগোলোযোগ হোক। তাহলে সে সাড়া জাগানো ঘটনা বা ব্যক্তিতে পরিণত হবে।’’

 

তসলিমা রুদ্ররে যিনি একদম কাছ থিকা চিনতেন তারমধ্যে একজন হইলো আহমদ ছফা।তাসলিমা ছিলো একটা টক্সিন! যার ভিতরে ঢুকতো তারে খাইয়া ছেড়ে দিতো।আহমদ ছফা এই বিষয়টারে একেবারে খোলাসা করে দিছে;

ahmed_sofa.jpg-picsay

‘‘”তারপর রুদ্র মুহম্মদ শহিদুল্লাহকে বিয়ে করে লেখালেখির জগতে ঢুকেছে এবং সাফল্যজনকভাবে কচি বয়সে রুদ্রকে পরপারে পাঠাতে সক্ষম হয়েছে ।

।…প্রকাশক ভদ্রলোকটিকে বিদায় করে আনন্দবাজার পত্রিকার এক বাংলাদেশী সংবাদদাতার অনুগ্রহ লাভ করে কলকাতায় পাড়ি জমিয়েছে ।জীবনের প্রতিটি পর্যায়ে সে শরীরটা ব্যবহার করে একেবারে চন্দ্রলোকে আরোহন করেছে ।তার লেখার মধ্যে মেধা ও মননের শক্তি কোথায়?তার চরিত্রে কোন রকমের নীতিনিষ্ঠা মাইক্রোস্কোপ দিয়ে খোঁজ করলেও কেউ খুঁজে পাবেন কি ?তসলিমা কি সত্যিকার নারীবাদী?তসলিমা কি সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের বন্ধু?তসলিমা কি কোন উচ্চ ভাবনা চিন্তা কখনো করেছে?এ সমস্ত প্রশ্ন করলে যারা তসলিমাকে প্রবল আবেগ নিয়ে সমর্থন করেছিলেন,তাদের কেউ কোন সদুত্তর দিতে পারবেন না ।…..আসলে তসলিমা কি?

তসলিমা হল ভারতের ছুঁড়ে দেয়া কৃত্রিম উপগ্রহ ।বাংলাদেশকে কালোভাবে চিত্রিত করাই যার একমাত্র কাজ ।’’

[আহমদ ছফা;তসলিমার জার্মান কান্ড,

প্রবন্ধ গ্রন্থ :নিকট ও দূরের প্রসঙ্গ]

 

তাইলে তাসলিমারে অসৎ আপনেরা কেন বলবেন? বিষাক্ত সাপের বিষ এবং বিষাক্ত সাপ উভয়ই দেখতে সুন্দর,কিন্তু সে যখন ভিতরে বিষ ঢুকাবে, রক্তে রক্তে টক্সিন পৌঁছে দিয়া শেষ পরিণতি ভয়ানক করবে এইটা প্রমাণিত।

Advertisements

7 thoughts on “তাসলিমা নাসরিন ও তার সততা যখন প্রশ্নবিদ্ধ!”

  1. মৌলবাদীরা এসব আনকোড়া পাতি লেখকদের লেখায় তাসলিমা দিদির উল্লেখ নিয়ে লাফাচ্ছে দেখে অনবরত হেসে যাচ্ছি হা হা হা!বিশ্বের সমস্ত জাতির উন্নতি হয়েছে, আদিবাসীরাও আজ উন্নত, কিন্তু একমাত্র মুসলমান জাত টাই পিছনে পরে খাবি খাচ্ছে—– কেন?? এই বইগুলো ও তার লেখক আর ফেসবুকের পাতি লেখকদের মধ্যে কোন ফারাক দেখতে পেলাম না— একজায়গায় এসে আপ্নারা শেষ করেন… ইসলাম প্রচার ই যার মদ্দাকথা্‌,বড় হাসি পায় ভাই—— আপনাদের দিয়ে সত্যি ই কিছু হবে না।। আমার কমেন্ট একটু ডীপলী ভেবে দেখুন। যদি তাতে দুঃখী হন্‌, তার জন্নে আমি দুঃখিত—–

    Like

    1. আপনের বাড়ি কই?
      নিশ্চই কইলকাতাত্থোন এইখানে কমেন্ট দুচাইতে আসছেন? আপনে কি আহমদ ছফারে চিনেন নাকি ‘‘ইয়া তসলিমা মেরা পিয়ার পিয়ার’’ করতে আসছেন? তাসলিমার ভাগটারে বড় বানাইতে আপনে কতটা নিচে নামছেন চিন্তা করেন একবার!আহমদ ছফার মত বড় মাপের একজন বুদ্ধিমান লেখক বাংলায় আছে কিনা অনেকে সন্দেহ করে,আর আপনে তাঁরে বলতেছেন পাতি লেখক? তাঁর গ্রন্থ একটাও পড়ছেন আপনে? আমি তো পুরা কলকাতার সাহিত্যিকদের ছফার একটা রচননার সমান ভাবিনা!ফালতু কমেন্টটা শুধু লোকজনরে আপনাগো চরম পর্যায়ের তাসলিমা প্রেম দেখাইতে রাখলাম।

      Like

  2. তাসলিমা নাসরিন ও তার সততা যখন প্রশ্নবিদ্ধ!

    Like

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s