রবীন্দ্রনাথ এর সমালোচনা -প্রশ্ন এবং জবাব

রবীন্দ্রনাথ এর সমালোচনার সময়ে আমি কিছু কঠিন প্রশ্নের মুখোমুখি হয়েছি।চেষ্টা করেছি সেগুলোর যথাযথ উত্তর দিতে।তবে পাঠকরা সে উত্তরে খুশি হতে Continue reading “রবীন্দ্রনাথ এর সমালোচনা -প্রশ্ন এবং জবাব”

Advertisements

রবীন্দ্র সমালোচনার নামে

সজল আহমেদ

1

আমরা রবীন্দ্র সমালোচনার নামে কিছু সমালোচনা করি বাইবেল নীতিতে অথবা প্রথিত বিদ্বেষ থেকে। বাইবেলের মত বাপের দোষ সন্তানের মাথায় চাপাতে চাই।রবীন্দ্রনাথ এর সমালোচনার মানে এই না যে,তাঁর পিতামহ,পিতা ও ভাইয়ের দোষ তাঁর ওপর বর্তাবে। Continue reading “রবীন্দ্র সমালোচনার নামে”

রবীন্দ্র সমালোচনা- অধ্যাপক আব্দুর রাজ্জাক কেন রবীন্দ্রনাথ কে বড় মানুষ ভাবতেন না?

লিখেছেন সজল আহমেদ

বাংলা সাহিত্যে পদার্পণ মানে আপনি ইতোমধ্যে রবীন্দ্রনাথ পাঠ করে ফেলেছেন। বঙ্গে রবীন্দ্রনাথ কে বাদ দিয়ে বাংলা সাহিত্য পাঠ মানে-লবনহীন তরকারী। কোন এক অদৃশ্য হাত বাংলা সাহিত্যে রবীন্দ্রনাথ পাঠ বাধ্যগত করেছেন। সেই ছোটবেলায় শুরু জাতীয় সংগীত “আমার সোনার বাংলা আমি তোমায় ভালবাসি” থেকেই আপনার আমার রবীন্দ্রনাথ পাঠ শুরু হয়েছে। এরপর “ব্যক্তিস্বাধীনতা” বোধ হওয়ার আগ পর্যন্ত ইচ্ছা হোক আর অনিচ্ছা হোক রবীন্দ্রপাঠ বাধ্যতামূলক। প্রত্যেক শ্রেণীর পাঠ্য বইতে রবীন্দ্রনাথ থাকবেই। সরকার পাল্টালে শ্রেণী বিশেষ প্রবন্ধ-কবিতা পাল্টে যায়, কোন কোন পূর্ববঙ্গের লেখক ও হয়তো পাতা থেকে অদৃশ্য হয়ে যায়। রাজনৈতিক দাঁড়িপাল্লায় এক সময় অদৃশ্য হয়ে যাবে আল-মাহমুদ ও সোনার নোলক। ইতোমধ্যে ফররুখ আহমেদকে খুঁজে পাচ্ছিনে পাঠ্য বইতে। কিন্তু পাঠ্যবইতে রবীন্দ্রনাথ থেকেই যাবে, থাকতেই হবে থাকা চাই চাই। মাদ্রাসা শিক্ষাতেও রবীন্দ্রনাথ স্থান পেয়েছে শুনেছি। শুনে ভালোই লেগেছে। মাদ্রাসা ছাত্ররা স্যেকুলার হবে, মাদ্রাসা ছাত্ররা রবীন্দ্রনাথ জানবে রবীন্দ্রনাথ পড়বে।….বিস্তারিত পড়ুন→